Bangla24x7 Desk : নির্বাচনের কয়েক ঘণ্টা আগেই আবারো উত্তপ্ত নন্দীগ্রাম। সংঘর্ষে জড়াল তৃণমূল-বিজেপি। এবার আক্রান্ত তৃণমূল। শুভেন্দুর গড়ে আক্রান্ত তৃণমূল। বিজেপির বিরুদ্ধে তৃণমূলের ওপর হামলার অভিযোগ। লাঠি , বাঁশ সহ হাঁসুয়া , লোহার রড দিয়ে তৃণমূল কর্মীদের মেরে মাথা ফাটিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে বিজেপির বিরুদ্ধে। লোকসভা নির্বাচনের কয়েক ঘণ্টা আগেই অশান্তির এপিসেন্টার , অগ্নিগর্ভ হয়ে উঠল শুভেন্দু অধিকারীর বিধানসভা। বিজেপি মহিলা কর্মীর খুনের ঘটনায় আগেই ধিকিধিকি জ্বলছিল বিক্ষোভের আগুন।

হুমকি-পাল্টা হুমকিতে রণক্ষেত্রের চেহারা নিয়েছিল পূর্ব মেদিনীপুরের নন্দীগ্রাম। তৃণমূল সূত্রে খবর , রাত ১১ টা নাগাদ নন্দীগ্রাম ২ নম্বর ব্লকের ভেটুরিয়া গ্রামে একটি রাস্তার পাশে চায়ের দোকানে বসেছিলেন কয়েক জন তৃণমূল কর্মী। আচমকা লাঠি, বাঁশ. লোহার রড, হাঁসুয়া নিয়ে তৃণমূল কর্মীদের ওপর অতর্কিতে হামলা চালায় এক দল দুষ্কৃতী। মেরে তৃণমূল কর্মীদের মাথা ফাটিয়ে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ।  জখম তৃণমূল কর্মীরা স্থানীয় রেয়াপাড়া হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

উল্লেখ্য , আগেই নন্দীগ্রামে ধিকিধিকি জ্বলছিল বিক্ষোভের আগুন। কিন্তু রথীবালা নামে মহিলা বিজেপি কর্মীর খুনের অভিযোগ ঘিরে ক্রমশ অগ্নিগর্ভের এলাকার চেহারা নেয় নন্দীগ্রাম। ভোটের আগে তপ্ত হয়ে ওঠে নন্দীগ্রামের সোনাচূড়া এলাকা। রাস্তার ওপর গাছ ফেলে, আগুন জ্বালিয়ে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন বিজেপি কর্মী সমর্থকরা। এরই মধ্যে পার্থ ভৌমিক, রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় সহ তৃণমূল প্রতিনিধি দল এলাকায় পৌছলে কার্যত দাবানলের মত ছড়িয়ে পড়ে বিক্ষোভের আগুন। এরপর নির্বাচনের মাত্র কয়েক ঘণ্টা আগে শুক্রবার রাতেই আবারো নতুন করে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে নন্দীগ্রাম।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *