img-2

Bangla24x7 Desk : পার্থ-অর্পিতার পর গোপাল-হৈমন্তী ! নিয়োগ দুর্নীতির পীঠস্থান কি বেহালা ? জানতে তৎপর CBI। কুন্তল ঘোষের মুখে মডেল হৈমন্তী গঙ্গোপাধ্যায়েরে নাম শোনার পরে উঠছে এই প্রশ্ন। এবার নিয়োগ দুর্নীতি কাণ্ডে নাম উঠে আসা হৈমন্তী গঙ্গোপাধ্য়ায়ের নামেও তেমনই কিছু শেল কোম্পানির হদিস পেল সিবিআই। শেল কোম্পানির হদিস মিলেছে তাঁর স্বামী গোপাল দলপতির নামে। অন্তত তেমনটাই জানাচ্ছে সিবিআই।

সিবিআই সূত্রে খবর, ২০১৫-১৬ সালে গোপালের সঙ্গে প্রথম পরিচয় হয় হৈমন্তী গঙ্গোপাধ্যায়ের। সেই সময় হৈমন্তী উঠতি মডেল হওয়ায় সেভাবে কাজ পাচ্ছিলেন না। এদিকে , তাপস মণ্ডল , কুন্তল ঘোষের মতো একাধিক প্রভাবশালী নেতাদের সঙ্গে ওঠাবসা ছিল গোপালের। নিয়োগ দুর্নীতি চক্রে গোপাল যতই জড়িয়ে যেতে থাকেন, ততই জড়াতে থাকেন হৈমন্তী। স্বামীর কাজকর্মের সম্পর্কে নাকি তিনি ভালই ওয়াকিবহাল ছিলেন। গোয়েন্দাদের সন্দেহ , গোপাল-হৈমন্তীদের শেল কোম্পানি গুলির মাধ্যমেই চাকরিপ্রার্থীদের কাছ থেকে পাওয়া কালো টাকা সাদা করা হত।

img-3

সূত্রের খবর , সিনেমাতে প্রযোজক হয়ে নাকি টাকা ঢালতে চেয়েছিলেন এই হৈমন্তী। কিন্তু, সামান্য মডেল হয়ে, কোথা থেকে পেতেন এত টাকা, সেখানেই দানা বাঁধছে প্রশ্ন। হৈমন্তীদের ওই ফ্ল্যাটের চিলেকোঠার বারান্দায় নাটকের একটি স্ক্রিপ্ট মিলেছে। সেখানে উত্তম কুমার সংক্রান্ত একটি নাটকে নার্সের ভূমিকায় ছিলেন হৈমন্তী। তাঁর সেই স্ক্রিপ্টের পিছনের পাতায় নার্সের নাম হিসেবে লেখা হৈমন্তী গঙ্গোপাধ্যায়। আরও একটি স্ক্রিপ্ট পড়ে থাকতে দেখা যায় ওই ফ্ল্যাটের চিলেকোঠায়। বিপাশা-নন্দিতা সংলাপ। সেখানে হৈমন্তীর নাম লেখা একটি খামে। রাজা রাম মোহন রায় রোডের ফ্ল্যাটে আবর্জনার স্তূপ থেকে মিলেছে। মিলেছে হৈমন্তী গাঙ্গুলীর নামে বিয়ের নিমন্ত্রণের কার্ড!

অর্পিতার মতো হৈমন্তী একসময় ছিলেন বেহালার বাসিন্দা। বেহালার রাজা রাম মোহন রায় রোডে গোপাল-হৈমন্তী একসঙ্গে থাকতেন দাবি স্থানীয় বাসিন্দাদের। কিন্তু, জানুয়ারি মাস থেকে আসছিলেন না কেউই। নিয়োগ দুর্নীতি কাণ্ডে সিবিআইয়ের হাতে গ্রেফতার হওয়া যুব তৃণমূল নেতা কুন্তল দাবি করেছেন , চাকরিপ্রার্থীদের কাছ থেকে নেওয়া সব টাকাই গিয়েছে গোপাল দলপতির কাছে। জানা গিয়েছে , গোপালের স্ত্রী হৈমন্তীর মুম্বইয়ের সংস্থার অ্যাকাউন্টে ৬৮ লক্ষ টাকা গিয়েছিল সে সময়। আরেকবার হৈমন্তী কাছে গিয়েছিল ১২ লক্ষ টাকা। তদন্তে সিবিআই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *