img-2

Bangla24x7 Desk : এক সপ্তাহের ব্যবধানে ফের অনুব্রত মণ্ডলের বাড়িতে সিবিআই আধিকারিকরা। বুধবার বেলা ১২ টা বেজে ১৭ মিনিট নাগাদ সিবিআইয়ের ৪ সদস্যের প্রতিনিধি দল পৌঁছন মণ্ডল বাড়িতে। জানা গিয়েছে, একাধিক নথি সঙ্গে নিয়ে বোলপুরের নিচুপট্টির বাড়িতে যান তদন্তকারীরা। কিন্তু জেরার মুখোমুখি হতে রাজি হননি সুকন্যা। মানসিকভাবে বিপর্যস্ত বলে উল্লেখ করে আধিকারিকদের ফিরিয়ে দেন তিনি।

img-3

এ দিন সকালে প্রথমে শান্তিনিকেতনে পূর্ব পল্লীর গেস্ট হাউসে গিয়েছিলেন সিবিআই আধিকারিকরা। সেখানে প্রায় ২ ঘণ্টা ধরে অনুব্রত মণ্ডলের সিএ মণীশ কোঠারিকে জিজ্ঞাসাবাদ করে সিবিআই। সেখানে এক ব্যাঙ্ক কর্মীও উপস্থিত ছিলেন বলে জানা গিয়েছে। সেখান থেকে বেরিয়ে চারজন সিবিআই আধিকারিকের টিম সোজা চলে যায় বোলপুরের নীচুপট্টিতে অনুব্রত মণ্ডলের বাড়িতে। কিছুক্ষণ পরই দেখা যায় বাড়ি থেকে বেরিয়ে আসেন এক মহিলা সহ ওই চার আধিকারিক। সোজা উঠে যান দোতলায়। সেখানে ছিলেন সুকন্যা। মিনিট দশেকের মধ্যে ওই বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান সিবিআই আধিকারিকরা।

জানা গিয়েছে, সিবিআইকে সহযোগিতা করতে রাজি হননি সুকন্যা। তিনি জানান, “বাবা হেফাজতে রয়েছেন, সদ্যই মাকে হারিয়েছি। তাই এখন কোনও কথা বলব না।” সেই কারণে ১০ মিনিটের মধ্যেই মণ্ডল বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান আধিকারিকরা। এবার মেয়ের ক্ষেত্রেও সিবিআই সেই একই অভিযোগ তুলতে পারে বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। তবে তার আগে সুকন্যাকে আরও কিছুটা সময় দেওয়া হতে পারে বলেও মনে করা হচ্ছে। সিবিআই আরও একবার নোটিস দিতে পারে তাঁকে। সরাসরি আদালতে সিবিআই সার্চ ওয়ারেন্ট জারি করার আবেদনও করতে পারে।সিবিআইয়ের পরবর্তী পদক্ষেপ কী হবে, এখন নজর সেদিকেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *