img-2

Bangla24x7 Desk : বৃহস্পতিবারই রামের মূর্তির গড়ার জন্য বিশেষ শালগ্রাম শিলা এসেছে নেপাল থেকে। ৬ লক্ষ বছরের প্রাচীন শিলা দিয়েই শুরু হয়েছে মূর্তি নির্মাণের কাজ। আর একই দিনে নির্মীয়মাণ রাম মন্দির উড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে ফোন এল কর্তৃপক্ষ। বৃহস্পতিবার রাতে এই হুমকি ফোন ঘিরে আতঙ্কের পরিবেশ অযোধ্যা জুড়ে। তড়িঘড়ি বাড়ল নিরাপত্তা। উত্তর প্রদেশ পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে  , অজ্ঞাতপরিচয় এক ব্যক্তি ফোন করে বিস্ফোরণে মন্দির উড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেন। তিনি কে , কোথা থেকে ফোন করেছেন , সেসব খতিয়ে দেখছে পুলিশ। দায়ের হয়েছে মামলা।

img-3

সনাতন রীতি অনুযায়ী মকর সংক্রান্তিতে মূর্তি স্থাপনের রেওয়াজ রয়েছে। কারণ এই সময় সূর্য দক্ষিণ থেকে উত্তর গোলার্ধে ভ্রমণ করে থাকে। রাম মন্দির ট্রাস্টের সাধারণ সম্পাদক চম্পত রাই জানিয়েছেন, মকর সংক্রান্তি হল রাম মূর্তি স্থাপনের সবচেয়ে শুভদিন। সেই লক্ষ্যে কাজ শুরু হয়েছে। কিন্তু সাময়িক বাধা হয়ে দাঁড়ায় নিরাপত্তা ইস্যু। ২০২৪ সালের মকর সংক্রান্তিতেই রাম মন্দিরের গর্ভগৃহে নতুন রামলালার মূর্তি স্থাপন করার লক্ষ্য নিয়েছে রাম মন্দির ট্রাস্ট। কাজ এগোচ্ছে সেই ভাবেই। আসলে চব্বিশের লোকসভা নির্বাচনের আগে রাম মন্দির বড় তুরুপের তাস হতে চলেছে বিজেপির  কাছে।

কিন্তু সেই লক্ষ্যে আচমকা আতঙ্কের বেড়াজাল। উড়ো ফোনে কেউ নির্মীয়মাণ মন্দিরে বিস্ফোরণ ঘটিয়ে তা উড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিল। ফলে এলাকার নিরাপত্তা বেড়েছে অনেকটাই। জানা গিয়েছে, রামকোটের বাসিন্দা মনোজের কাছে ফোনটি আসে। শুধুমাত্র বিস্ফোরণে মন্দির ওড়ানোর কথা বলার পরই ফোন কেটে যায়। তিনি নিজেই ফোন করে পুলিশকে সব জানান। হুমকি ফোনের খবর পেয়ে অযোধ্যার পুরোহিত, কর্মীরা তটস্থ। যদিও স্থানীয় পুলিশ অফিসার তাঁদের আশ্বস্ত করেছেন। রাম মন্দির চত্বর তো বটেই, গোটা অযোধ্যায় বাড়ানো হয়েছে নিরাপত্তা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *