img-2

Bangla24x7 Desk : প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিকে চ্যালেঞ্জ করে মামলা হয়েছিল কলকাতা হাই কোর্টে। সোমবার মামলা খারিজ হয়ে গেল আদালতে। হাই কোর্ট জানিয়েছে, আগামী ২১ অক্টোবর থেকে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করতে পারবে পর্ষদ। নিয়োগ প্রক্রিয়া চালাতে পারবে তারা। ফলে নয়া প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের বাধা কাটল বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

গত ২৯ তারিখ প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের তরফে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়। সেই বিজ্ঞপ্তিকে চ্যালেঞ্জ করে জোড়া মামলা হয় কলকাতা হাই কোর্টে। বিএড ডিগ্রিধারীরা মাধ্যমিকস্তরের শিক্ষক পদের জন্য আবেদন করতে পারেন। ডিএলএড প্রশিক্ষণপ্রাপ্তরা শুধুমাত্র প্রাথমিকস্তরের শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রে আবেদন করতে পারেন। তাই প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের জন্য বিএড ডিগ্রিধারীরা আবেদন করলে ডিএলএডদের চাকরির সুযোগ কমে যাবে। তাই প্রাথমিক নিয়োগে যাতে বিএড প্রশিক্ষনপ্রাপ্তরা পরীক্ষা দিতে না পারে, সেই মর্মে আদালতে মামলা হয়েছিল।

img-3

বিচারপতি তীর্থঙ্কর ঘোষ জানান, বিএড ডিগ্রিধারীরা প্রাথমিক শিক্ষক পদের জন্য আবেদন জানাতে পারবে কিনা তা নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে মামলা চলছে। শীর্ষ আদালতের রায়ের উপরই এই মামলার ভবিষ্যত নির্ভর করছে। বলেন, “সুপ্রিম কোর্টের মামলার ফলাফলের ওপর নির্ভর করবে প্রাথমিক নিয়োগ প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণ করা বিএড যোগ্যতা সম্পন্ন প্রার্থীদের ভাগ্য।”

তবে পর্ষদ কর্তৃপক্ষ এধরনের সংশোধনী প্রকাশ করতে পারবে কিনা, তা জেনে আসার নির্দেশ দেন পর্ষদের আইনজীবীকে। পরে শুনানি চলাকালীন বিচারপতি তীর্থঙ্কর ঘোষের প্রশ্ন, শুধু মামলার পর মামলা হচ্ছে, চাকরি হচ্ছে কোথায়? মামলার পর মামলা হচ্ছে, নিয়োগ হচ্ছে না। পরে হাই কোর্ট জানায়, আগামী ২১ অক্টোবর থেকে নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করতে পারবে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ। নিয়োগ প্রক্রিয়া চালিয়ে যেতে পারবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *