img-2

Bangla24x7 Desk : গরুপাচার মামলা নিয়ে তোলপাড় বাংলা। গ্রেপ্তার করা হয়েছে অনুব্রত মণ্ডলকে। জেলায় জেলায় চলছে তল্লাশি। রহস্যের শিকড়ে পৌঁছনোর চেষ্টা করছে সিবিআই। এরই মাঝে গরু বোঝাই কন্টেনার ধরা পরল ঝাড়খণ্ডের ধানবাদে। এদিকে পুরুলিয়ায় দুধের গাড়ি থেকে উদ্ধার হয়েছে প্রচুর গরু। পৃথক দু’ টি ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য এলাকায়।

মঙ্গলবার ভোর রাতে ঝাড়খণ্ড হয়ে বাংলায় ঢুকছিল একটি ডাক পার্সেল বা ভারী জিনিসপত্র বোঝাই কন্টেনার। ধানবাদে স্থানীয়দের নজরে পড়ে সেটি। স্বাভাবিকভাবেই তাঁদের সন্দেহ হয়। খবর পেয়ে কন্টেনারটিকে আটকে দেয় গোরক্ষা কমিটির সদস্যরা। গাড়ির দরজা খুলতেই চক্ষু চড়কগাছ। দেখা যায়, গাদাগাদি করে রাখা প্রচুর গরু। সঙ্গে সঙ্গে খবর দেওয়া হয় পুলিশে। ঘটনাটিকে কেন্দ্র করে তীব্র চাঞ্চল্য ছড়ায় এলাকায়।

img-3

স্থানীয় সূত্রে খবর, গাড়িটি ধরা পড়তেই চালক ও খালাসি পালিয়ে যায়। সংস্থার সদস্যদের অভিযোগ, বিহারের ওরঙ্গবাদে হাট থেকে কেনা হয় এই গরুগুলি। গৃহপালনের নামে কি না গরুগুলি পরবর্তীতে পাচার হয়ে যায় প্রতিবেশী বাংলাদেশে। আর এই পাচারের জন্য রুট হিসাবে ব্যবহার করা হয় বিহার ও পশ্চিম বাংলার বীরভূম , মুর্শিদাবাদ হয়ে বাংলাদেশ সীমান্ত পর্যন্ত যাওয়া জাতীয় সড়ককে।

একাধিকবার পুলিশ প্রশাসনকে বিষয়টি জানিয়েও কোনও ফল হয়নি। তাই মঙ্গলবার ভোরে ধানবাদের বারবাড্ডার কাছে একটি গরু বোঝাই কন্টেনার আটকে দেন গোরক্ষা কমিটির সদস্যরা। বেগতিক বুজে তখনই ঘটনাস্থল ছেড়ে পালায় গাড়িটির চালক ও খালাসী। এরপর ডালা খুলতেই দেখা যায় পার্সেলের আড়ালে গাদাগাদি করে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে বেশ কয়েকটি গরু। এবং গোটা কন্টেনারটির কোথাও একটি ছোট্ট জানলা পর্যন্ত নেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *