Bangla24x7 Desk : সোহমের ক্ষমা চাওয়া উচিত। সতীর্থ সোহমের সমালোচনা করে এবার কামারহাটির বিধায়ক মদন মিত্রের তোপের মুখে পড়লেন অভিনেতা-সাংসদ দেব। তাঁর দাবি, চণ্ডীপুরের বিধায়কের সমালোচনা করে ‘দাদাগিরি’ করেছেন দেব। রাজনীতির আঙিনায় বেশি পদক্ষেপ করে ফেলছেন অভিনেতা-সাংসদ। মারধরের ঘটনায় সোহম চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন দেব। বিষয়টির রীতিমতো নিন্দা করেছেন , আর কী বললেন মদন ?

সোহমকে প্রশংসায় ভরিয়ে মদনের দাবি, “বাংলায় বিধায়ক ও শিল্পীদের মধ্যে আমার দেখা সবচেয়ে ভালো মানুষ সোহম। কখনও সীমা ছাড়ায় না। ওর দোষ হল, ও নিতান্তই নিরীহ যুবক। সোহমকে মারতে দেখে খারাপ লাগছে। এই সোহমকে আমি দেখিনি।” এরপরই দেবকে বিঁধে তিনি দাবি করেন, “সোহমের পাশে না দাঁড়িয়ে, ভুল করেছ, ক্ষমা চেয়ে নাও না বলে কঠিন সমালোচনা করেছেন দেব। ওটা দাদাগিরি হয়ে গেল।” এর পরই মদন-বান, “সোহমকে কিছু বলার দরকার হলে দল আছে, সংসদীয় দল আছে, কোর কমিটি আছে, অভিষেক আছে, মমতা আছে।” এখানেই শেষ নয়, দেবকে রাজনীতির আঙিনা থেকে দূরে থাকার পরামর্শও দেন মদন। তাঁর কথায়, “দেবকে আমি অনুরোধ করব, তুমি সিনেমায় ছিলে তো! সিনেমায় তুমি এক নম্বর। আস্তে আস্তে সিনেমা ছেড়ে রাজনীতিতে তোমার পদক্ষেপটা বেশি হয়ে যাচ্ছে। এতে তোমারও ক্ষতি, বাংলারও ক্ষতি।” 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *