img-2

Bangla24x7 Desk : সংসদে রাহুল গান্ধীর আগ্রাসী ভাষণের জবাব দিতে গিয়ে আরও আগ্রাসী মেজাজে দেখা গেল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে। রাহুলকে একপ্রকার ব্যক্তিগত আক্রমণ করে প্রধানমন্ত্রী বলে দিলেন, একজন বিরোধী নেতা কাল এত কথা বলেছেন…। রাতে ভাল ঘুম হয়েছে নিশ্চয়ই। তাই আজ আর আসতে পারেননি।

আসলে আদানি ইস্যুতে মঙ্গলবার সংসদে রীতিমতো ঝড় তুলে দেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। একের পর এক প্রশ্নবাণে মোদিকে জর্জরিত করেন রাহুল। একপ্রকার কৈফিয়তের সুরে রাহুল জানতে চান, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আদানির কী সম্পর্ক ? কতবার আদানির সঙ্গে গোপনে দেখা করেছেন মোদি ? প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কতবার বিদেশ সফরে গিয়েছেন তিনি ? পরে গিয়ে কতবার প্রধানমন্ত্রীর বিদেশ সফরে যোগ দিয়েছেন আদানি? প্রধানমন্ত্রীর সফরের পরই কেন আদানি সব দেশে গিয়ে ব্যবসার বরাত পান ?

img-3

বস্তুত, রাহুলের এই ‘ব্যক্তিগত আক্রমণ’ ভালভাবে নেননি মোদি। প্রধানমন্ত্রী মনে করছেন তাঁর চরিত্র কালিমালিপ্ত করার চেষ্টা করা হচ্ছে। স্বাভাবিকভাবেই রাহুলের এই অভিযোগের জবাব দিতে গিয়ে তাঁকে একপ্রকার তুলোধোনা করে দিয়েছেন মোদি। ঘটনাচক্রে এদিন সংসদে হাজির ছিলেন না রাহুল গান্ধী। সেই প্রসঙ্গ তুলে মোদির কটাক্ষ, ভাল কিছু হলেই ওরা হতাশ হয়ে যায়। রাষ্ট্রপতির ভাষণ নিয়ে নিজের দলের অবস্থান অনুযায়ী কথা বলছেন বিরোধীরা। তাতে স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে বিরোধী দলগুলির কার কী রুচি। মোদির বক্তব্য, আসলে ওদের ভিতরটা ঘৃণায় ভরতি। সেই ঘৃণা বেরিয়ে আসছে। ওদের পুরো ইকোসিস্টেম প্রকাশ্যে চলে আসছে।

প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য, “ওরা ভাবে মোদিকে গালি দিলেই আমাদের উন্নতি হবে। কিন্তু এত কোনও কোনও লাভ হবে না। ২২ বছরেও ওরা শিখল না মোদিকে গালি দিয়ে লাভ নেই। দেশের মানুষ মোদিকে ভরসা করে। আর এই ভরসা ২২ বছর ধরে কাজ করার ফল। মোদির দাবি, ওরা একটা পরিবারের কথা ভাবে। আমি ২৫ কোটি পরিবারের কথা ভাবি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *