img-2

Bangla24x7 Desk : সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে লড়াই , ২০২৪ এর মধ্যে সব রাজ্যে NIA শাখা। এমনটাই জানিয়েছেন দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। হরিয়ানার সুরজকুণ্ডে রাজ্যগুলির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদের নিয়ে চিন্তন শিবিরের প্রথম দিনেই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ঘোষণা করেছেন, আগামী দু’বছরের মধ্যে দেশের প্রতিটি রাজ্যে জাতীয় তদন্ত সংস্থার শাখা খোলা হবে। শীঘ্র সংসদে ফৌজদারি কার্যবিধি এবং ভারতীয় দণ্ডবিধির নতুন খসড়া আনার পরিকল্পনা রয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের।

পাশাপাশি, প্রতিটি রাজ্যকে ন্যাশনাল ফরেনসিক কলেজ খোলার কথাও বলা হয়েছে। পিএফআইয়ের মতো ‘শিখ ফর জাস্টিস’ সংগঠনের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা জারি করার কথা ভাবছে কেন্দ্র। NIA’র এক্তিয়ার বৃদ্ধি নিয়ে তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। দলের রাজ‌্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ বলেন, “বিষয়টি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। দলনেত্রী যা বলার বলবেন। এভাবে বারবার কেন্দ্র যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামো না মেনে পিছনের দরজা দিয়ে রাজ্যের অধিকার খর্ব করার চেষ্টা হচ্ছে।”

img-3

এনআইএকে কোনও এলাকায় তদন্তে সীমাবদ্ধ রাখা হচ্ছে না। উলটে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী এই সংস্থাকে তার থেকেও বেশি অধিকার দেওয়া হয়েছে। নির্দিষ্ট এলাকার বাইরে গিয়েও তদন্ত করতে পারবে এনআইএ। সে জন্য রাজ্যের অনুমতি নেওয়ার প্রয়োজন হবে না। আর এখানেই আপত্তি বিভিন্ন বিরোধী দলের। তাদের বক্তব্য, আইন-শৃঙ্খলা রাজ্যের এক্তিয়ারভুক্ত। অথচ, ঘুরপথে তা লঙ্ঘন করছে কেন্দ্র।

‘চিন্তন শিবিরে’র উদ্বোধনী অধিবেশনে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, “প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বাধীন সরকার সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি নিয়েছে। এক্ষেত্রে সাফল্যের জন্য এনআইএ এবং অন্যান্য সংস্থাগুলিকে শক্তিশালী করা হচ্ছে। সারা দেশে একটি সন্ত্রাসবিরোধী নেটওয়ার্ক গড়ে তোলার চেষ্টা করা হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *