img-2

Bangla24x7 Desk : অগ্নিপরীক্ষায় জয় হল হেমন্ত সোরেনের। শেষ পর্যন্ত ঝাড়খণ্ডে আস্থা ভোট জিতে সরকার টিকিয়ে রাখল তাঁর দল। এদিন ঝাড়খণ্ড বিধানসভার বিশেষ অধিবেশন বসে। সেখানে ৮১ টির মধ্যে ৪৮ টি ভোট পায় ঝাড়খণ্ড জনমুক্তি মোর্চা-কংগ্রেস জোট। উত্তপ্ত বিধানসভা থেকে ‘ওয়াক আউট’ করেন বিজেপি বিধায়করা।

img-3

ঝাড়খণ্ড জনমুক্তি মোর্চা-কংগ্রেসের জোট সরকারকে ভেঙে ফেলার চেষ্টা করছে বিজেপি, এমনটাই অভিযোগ এনেছিলেন ঝাড়খণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সোরেন। এদিনও হেমন্ত মন্তব্য করেন, ‘‘আমরা শুনেছি লোকে জামাকাপড় কেনে, রেশন কেনে। বিজেপি শুধু বিধায়ক কেনে।’’ যদিও আস্থা ভোটে জয় ছিনিয়ে নিলেন হেমন্ত। জানা গিয়েছে, ঝাড়খণ্ড বিধানসভায় এদিনের বিশেষ অধিবেশনে গোটা সময় দুর্নীতির প্রসঙ্গ তুলে হেমন্ত সোরেন সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে সরব হন বিজেপি বিধায়করা। একটা সময় তাঁরা উত্তেজিত হয়ে ওয়াকআউট করেন।

অন্যদিকে ভোটের আগে হেমন্ত সোরেন বলেন, নির্বাচনে জেতার জন্য দাঙ্গায় ইন্ধন দিয়ে দেশে গৃহযুদ্ধের মতো পরিস্থিতি তৈরি করার চেষ্টা করছে বিজেপি। আরও অভিযোগ করেন, অসমের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা তাঁর সরকার ফেলতে বিধায়ক কেনার চেষ্টা করেন। বিজেপিকে আক্রমণ করে সোরেন বলেন, ‘‘বিরোধীরা গণতন্ত্র ধ্বংস করেছে। বিধায়ক কেনাবেচার খেলায় মেতে রয়েছে বিজেপি…বিধানসভায় আমরা শক্তিপ্রদর্শন করব।’’ বিজেপি যাতে তাঁদের দলের বিধায়কদের ভাঙাতে না পারেন, সে কারণে ক’দিন আগে দলের বিধায়কদের ছত্তিশগড়ে পাঠান হেমন্ত। বেশ কিছুদিন সেখানে কাটায় জেএমএম বিধায়করা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *