Bangla24x7 Desk : শনিবার সকালে রোয়িং অনুশীলনের সময় বোটটি উলটে যায়। পিছন দিকে উলটে পড়ে যান অনুশীলনকারী। যদিও তিনি নিজে সাঁতার জানেন বলে সাঁতরে অন্য পাড়ে উঠে যান। এরপর মিনিট পনেরোর মধ্যে রেসকিউ বোট রোয়িং বোটটিতে থাকা আরেকজনকে নিরাপদে উদ্ধার করেন। বড় বিপদ থেকে রক্ষা পেলেও মে মাসের দুর্ঘটনার স্মৃতি ফিরে এল। ওই দুর্ঘটনায় ২ কিশোরের মৃত্যু হয়েছিল।

এরপর প্রায় ছ’মাস বন্ধ রবীন্দ্র সরোবরে বন্ধ ছিল রোয়িং, বোটিং। দিন পনেরো আগেই তা ফের চালু হয়েছে। কেএমডিএ-র সমস্ত নিয়মবিধি মেনে তবেই চালু করা হয়েছে রোয়িং অনুশীলন। কিন্তু তারপরও ফের দুর্ঘটনার সাক্ষী রইল লেক। জানা গিয়েছে, শনিবার সকাল সাড়ে ৭টা নাগাদ রোয়িং অনুশীলন চলছিল। আচমকাই বোটটি উলটে যায়।

গত ২২ মে স্কুল পর্যায়ের রোয়িং টুর্নামেন্টের ফাইনাল হওয়ার কথা ছিল রবীন্দ্র সরোবরেই। সেই কারণে বেঙ্গল রোয়িং ক্লাব, লেক ক্লাব, ক্যালকাটা রোয়িং ক্লাবের পাঁচটি বোট নিয়ে তার আগেরদিন বিকেল থেকে সরোবরে অনুশীলন করছিল ছাত্ররা। বিকেল সাড়ে চারটে নাগাদ প্রায় ৯০ কিলোমিটার বেগে ঝড়ে আছড়ে পড়ে। রবীন্দ্র সরোবরে উলটে যায় রোয়িং বোট। তাতে ছিল সাউথ পয়েন্ট স্কুলের  পড়ুয়ারা। প্রাণ হারায় নবম ও দশম শ্রেণির পড়ুয়া পূষণ সাধুখাঁ এবং সৌরদীপ চট্টোপাধ্যায়। সন্ধে ৭টা নাগাদ দুই কিশোরের নিথর দেহ জল থেকে উদ্ধার করেন দুর্যোগ মোকাবিলা বাহিনীর কর্মীরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *