Bangla24x7 Desk :  গরু পাচার মামলায় প্রায় ছ’মাস জেলবন্দি অনুব্রত মণ্ডল। এই প্রথমবার অনুব্রতহীন বীরভূম সফরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ‘প্রিয়’ কেষ্টর অনুপস্থিতিতে বোলপুরে দাঁড়িয়ে বিজেপিকে চরম হুঁশিয়ারি দিলেন তিনি। মমতার হুঙ্কার , “চ্যালেঞ্জ নিলাম বীরভূম আমি নিজে দেখব।” সামনেই পঞ্চায়েত নির্বাচন। তার আগে অনুব্রত মণ্ডলের মতো দোর্দণ্ডপ্রতাপ দলীয় সৈনিক জেলবন্দি থাকা যে তৃণমূলের কাছে যথেষ্ট উদ্বেগের কারণ বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল। আর সে কারণে নিজের কাঁধেই বীরভূমের সংগঠনের দায়িত্বভার তুলে নিয়ে মমতা কৌশলী চাল দিলেন বলেই দাবি ওয়াকিবহাল মহলের।

img-2

এর আগে গত সোমবারের অনুব্রতহীন বোলপুরে গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক সেরে কোর কমিটিতে আরও তিন সদস্যকে যুক্ত করেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এতদিন কোর কমিটিতে ছিলেন চারজন সদস্য। নতুন করে সাংসদ শতাব্দী রায়, কাজল শেখ ও অসিত মালকে কোর কমিটিতে যুক্ত করা হয়। তবে মমতার তৈরি করা কোর কমিটিতে শতাব্দী রায় ও কাজল শেখের সংযোজন নিয়ে স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠছে। বরাবরই অনুব্রত বিরোধী বলে পরিচিত দু’জনে। স্বাভাবিকভাবেই তাঁদের দায়িত্ব বৃদ্ধি নানারকম জল্পনা উসকে দিয়েছে।

বুধবার অবশ্য বীরভূমের সংগঠন দেখভালের দায়িত্ব নিজের কাঁধেই তুলে নেন মমতা। বুধবার মমতা বলেন, “আমার ২-১ জন নেতাকে জেলে ভরেছে। তাতে কিছুই হবে না। যতদিন সে অ্যাবসেন্ট থাকবে বীরভূম আমি নিজে দেখব। আমাকে সাহায্য করবেন ফিরহাদ হাকিম। কোর গ্রুপ তো রয়েছেই। একটা প্রবাদ আছে না রাজা যায় বাজার। কুত্তা ভোকে হাজার। তৃণমূলে রাজা মানে প্রজা। প্রজার দল।” ওয়াকিবহাল মহলের একাংশের দাবি, অনুব্রতর সঙ্গে দলের দূরত্ব তৈরির প্রমাণ কোর কমিটিতে এই তিন সদস্যকে যোগ করা। এদিকে, এদিন অনুব্রতগড়ে দাঁড়িয়ে একবারও কেন ‘প্রিয়’ কষ্টের নাম উচ্চারণ করলেন না মমতা, তা নিয়েও শুরু হয়েছে জল্পনা,

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *