Bangla24x7 Desk : করোনা কালে বিপুল আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়তে হয়েছে ভারত তথা গোটা বিশ্বকে। তবে টিকাকরণের সৌজন্যে ভারতে পূর্ণ হয়েছে লক্ষ্মীর ভাঁড়াড়। সেই সঙ্গে করোনা ভ্যাকসিনের কল্যাণে ভারতে প্রাণ বেঁচেছে ৩৪ লক্ষের। স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণায় উঠে এল এমনই তথ্য। পাশাপাশি এও জানানো হয়েছে, টিকাকরণ অভিযানের খরচ বাদ দিয়ে ১৮.৩ বিলিয়ন মার্কিন ডলার লোকসানের হাত থেকেও রক্ষা করেছে এই করোনা ভ্যাকসিনই। উলটে ১৫.৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলার লাভের মুখ দেখেছে দেশ।

উল্লেখ্য, গোটা বিশ্বের মধ্যে ভারতে সর্ববৃহৎ টিকাকরণ অভিযান হয়েছিল। মোট জনসংখ্যার ৯৭ শতাংশ করোনার প্রথম এবং ৯০ শতাংশ দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছিলেন। ১২ বছরের ঊর্ধ্বদের টিকা নেওয়ার হারও নজরকাড়া।সম্প্রতি স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটি ও ইনস্টিটিউটের করোনা সংক্রান্ত গবেষণার রিপোর্ট প্রকাশ্যে এনেছেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী মনসুখ মাণ্ডব্য। ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের এক অনুষ্ঠানে ভারচুয়ালি যোগ দিয়ে অতিমারীর জমানায় ভারতের তিনটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপের কথা তুলে ধরেন মন্ত্রী। কনটেনমেন্ট, ত্রাণ এবং টিকাকরণ ।

রিপোর্ট অনুযায়ী, করোনা টিকার কারণে মানুষের শরীরে যে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমা তৈরি হয়েছিল, তাতেই প্রাণে বেঁচেছেন অন্তত ৩৪ লক্ষ মানুষ। অর্থাৎ করোনা টিকা যে সার্বিক ভাবে দেশের হিতে কাজ করতে সফল, সে কথাই উঠে এসেছে রিপোর্টে। স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরও জানান, কো-উইন অ্যাপের মাধ্যমে সহজেই কোভিড টিকা নেওয়ার ব্যবস্থা করা সম্ভব হয়েছিল। সেই কারণেই মিলেছে সাফল্য। সব মিলিয়ে ভ্যাকসিনের সৌজন্যে অতিমারী জমানা থেকে মাথা উঁচু করেই ঘুরে দাঁড়িয়েছে ভারত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *