img-2

Bangla24x7 Desk : কর্নাটকে হিজাব ইস্যু নিয়ে ভিন্নমত দুই বিচারপতির। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে হিজাব নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্তের পক্ষে রায় দিয়েছেন বিচারপতি হেমন্ত গুপ্ত। এদিকে , মামলাকারীদের আবেদন মেনে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের নির্দেশ দেন বিচারপতি সুধাংশ ধুলিয়া। এই মর্মে এবার বিস্ফোরক মন্তব্য আসাদুদ্দিন ওয়াইসির। মিম প্রধান বলেন , “আমাদের মেয়েদের হিজাব পরতে দিন। ইচ্ছে হলে আপনারা বিকিনি পরুন।”

img-3

হিজাব বিতর্ক নিয়ে ফের একবার কেন্দ্রীয় সরকারকে একহাত নিলেন মিম প্রধান। কেন মুসলিম মেয়েদের হিজাব পরার স্বাধীনতা কেড়ে নেওয়া হচ্ছে , এই অভিযোগ তুলে সরব হয়েছেন আসাদুদ্দিন ওয়াইসি। তিনি এদিন বলেন , “মুসলিম মেয়েরা যদি তাঁদের ইচ্ছেয় হিজাবে মাথা ঢাকতে চায় , তাহলে আপত্তি কোথায় ? তাঁরা তো নিজেদের বিচার বিবেচনা ঢেকে রাখতে চাইছে না।” জোর করে মুসলিম শিশুদের হিজাব পরানো হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। সে প্রসঙ্গে আসাদুদ্দিন ওয়াইসি বলেন , “সত্যিই কি আমরা মেয়েদের হিজাব পরতে বাধ্য করছি ? কখনই না। আমাদের মেয়েদের স্ব-ইচ্ছায় হিজাব পরতে দিন। আপানাদের পছন্দ হলে বিকিনি পরুন। হিজাব পরা মানেই কি সেই মুসলিম কন্যা পিছিয়ে রইলেন ? সমাজের উন্নতিতে তাঁর কোনও ভূমিকা থাকবে না ?”

আসাদুদ্দিন ওয়াইসির প্রশ্ন , “যখন একটি ক্লাসরুমে হিন্দু , শিখ ছাত্রীরা তাঁদের ধর্ম অনুযায়ী পোশাক পরে আসার সুযোগ পাচ্ছেন, তখন একজন মুসলিম পড়ুয়াকে কেন আটকানো হচ্ছে ? একটা ধারণা তৈরি করে দেওয়া হচ্ছে , মুসলিমরা পিছিয়ে থাকা সম্প্রদায়।” এখানেই শেষ নয় , মিম প্রধান একটি টুইট করেন , “একদিন হিজাব পরিহিত এক নারীই ভারতের প্রধানমন্ত্রী হবেন।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *