Bangla24x7 Desk : রাজ্যের উপমুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন তেলেগু চলচ্চিত্র জগতের সুপারস্টার তথা জনসেনা পার্টির প্রধান, পবন কল্যাণ। সিনেমা জগতের মতোই রাজনীতির জগতেও তিনি সমান সফল। তবে, জনমানসে চর্চা চলছে তাঁর ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে। আসলে, রাজ্য নির্বাচনে জনসেনা পার্টির ঐতিহাসিক জয়ের পর, তাঁকে বাড়িতে স্বাগত জানিযেছিলেন তাঁর স্ত্রী আনা লেজনেভা। আনা লেজনেভা সম্পর্কে আগ্রহ তৈরি হয়েছে জনগণের মধ্যে। কে তিনি? পবন কল্যাণের সঙ্গে তাঁর আলাপ হল কোথায় ?

আনা লেজনেভা হলেন একজন রুশ মডেল তথা অভিনেত্রী। ২০১১ সালে, ‘তিন মা’ সিনেরাম শুটিংয়ে পবনের সঙ্গে তাঁর আলাপ হয়েছিল। দ্রুত একে অপরের প্রেমে পড়েছিলেন। দুই বছর ধরে প্রেমপর্ব চলার পর, ২০১৩-র ৩০ সেপ্টেম্বর, তাঁরা বিয়ে করেছিলেন। ২০১৭ সালে জন্ম নেয় তাঁদের শিশুপুত্র, মার্ক শঙ্কর পবনোভিচ। আনারও আগে একবার বিয়ে হয়েছিল এবং ভেঙেও গিয়েছিল। সেই বিয়ে থেকে তাঁর, পোলেনা অঞ্জনা পাওনোভা নামে একটি মেয়ে ছিল। অপর তিন সন্তানের সঙ্গে পবন কল্যাণ, তাঁকেও নিজের মেয়ে হিসেবেই বড় করেছেন। পবন কল্যাণ তিনবার ছাদনাতলায় গিয়েছেন। তাঁর প্রথম স্ত্রী নন্দিনী তাঁকে আদালতে দৌড় করিয়েছিলেন। পবন সিনেমার জগতে আসার আগে থেকেই প্রেম ছিল দুজনের। ৫ কোটি টাকা খোরপোষ দিয়ে সেই সম্পর্ক থেকে বেরিয়েছিলেন পবন কুমার। নন্দিনীর সঙ্গে ডিবোর্সের মামলা চলাকালীনই, সহ-অভিনেত্রী রেণু দেশাইয়ের সঙ্গে লিভ ইন করা শুরু করেছিলেন পবন। নন্দিনীর সঙ্গে বিচ্ছেদের এক বছর পর, ২০০৯ সালে রেণুকে বিয়ে করেছিলেন পবন। সেই বিয়েও অবশ্য টিকেছিল ২০১২ অবধি। এরপরই পবনের জীবনে এসেছিলেন আনা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *