Bangla24x7 Desk : মাঝেমধ্যে মদ্যপানেও নেই রেহাই ! এই ৬ রকমের ক্যানসারে আক্রান্ত হতে পারেন আপনি। ভাবছেন ! প্রতিদিন তো আর খাচ্ছি না ! ঐ মাঝে মাঝে একটু লাইফটা এনজয় করতেই সুরাপান । কিন্তু বন্ধু , এই অল্প অল্প গল্পের মাঝেই লুকিয়ে রয়েছে প্রাণনাশের ঝুঁকি। মদ্যপানের কোনও উপকারিতা নেই। সপ্তাহে একদিন মদ খেলেও শরীরের সেই একই ক্ষতি হবে, যা প্রতিদিন খেলেও হবে। অ্যালকোহল আপনাকে জীবনের আয়ু কমিয়ে দিতে পারে। বাড়াতে পারে ক্যানসারের ঝুঁকি।

১. মদ্যপানের কারণে মুখ ও গলার ক্যানসারের ঝুঁকি বৃদ্ধি পায়। সিগারেটের মতোই অ্যালকোহলও দেহে কার্সিনোজেনিক প্রভাবকে তীব্র করতে পারে। 

২. মদ্যপান করলে পেটের ক্যানসার হওয়ার সম্ভাবনাও বেড়ে যায়। পাকস্থলীর ক্যানসারের পিছনে দায়ী থাকে অ্যালকোহল। ক্যানসারের ঝুঁকি এড়াতে হলে অ্যালকোহল সম্পূর্ণরূপে বন্ধ করা দরকার।

৩. মহিলাদের মধ্যে স্তন ক্যানসারের সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি। মদ্যপানের ফলে এই সম্ভাবনা আরও তীব্র হয়ে যায়। অ্যালকোহল দেহে এস্ট্রোজেনের মাত্রা বৃদ্ধি করে, যা স্তন ক্যানসারের অন্যতম কারণ।

৪. অ্যালকোহল সেবনের ফলে খাদ্যনালীর ক্যানসারের ঝুঁকি বৃদ্ধি পায়। যাঁরা দীর্ঘ সময় ধরে মদ্যপান করছে, তাঁদের মধ্যে খাদ্যনালীর ক্যানসার হওয়ার সম্ভাবনা বেশি।

৫. কোলোরেক্টাল বা মলদ্বারের ক্যানসারের পিছনেও দায়ী অ্যালকোহল। গবেষণায় দেখা গিয়েছে, যে সব ব্যক্তিরা মদ্যপান করেন, তাঁদের মধ্যে মলদ্বারের ক্যানসারের ঝুঁকি সবচেয়ে বেশি।

৬. মদ্যপানের জেরে লিভার যে ক্ষতিগ্রস্ত হয় , এ কথা প্রায় সকলেরই জানা। অ্যালকোহল লিভারে প্রদাহ তৈরি করে, ফ্যাটি লিভার, সিরোসিসের মতো রোগ ডেকে আনে। তার সঙ্গে লিভারে ক্যানসারের কোষও গঠিত হয় মদ্যপানের কারণে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *