Bangla24X7 Desk : চোখা চোখা প্রশ্ন , অনুব্রত মণ্ডলকে জেরা করবেন ইডি-র অন্যতম স্পেশাল ডিরেক্টর সোনিয়া নারাং।  দিনভর ধকল শেষে দিল্লি। অনুব্রত মণ্ডলকে তিন দিনের জন্য ইডি হেফাজতে পাঠিয়েছেন বিচারক রাকেশ কুমার৷ জানা গিয়েছে, কেষ্ট দিল্লি পৌঁছনো মাত্রই বিন্দুমাত্র সময় নষ্ট না করে রাতেই শুনানির ব্যবস্থা করে ইডি। জেরার জন্য তৈরি হয় ৬ সদস্যের বিশেষ দল।

জানা গিয়েছে, এই বিশেষ দলের নেতৃত্ব দেবেন এক বিশেষ মহিলা আইপিএস। নাম সনিয়া নারাং। বর্তমানে ইডি-র অন্যতম স্পেশাল ডিরেক্টরের দায়িত্ব সামলাচ্ছেন তিনি। ইডির  ডিরেক্টর সঞ্জয় মিশ্রর অধীনে যে চার ডিরেক্টর রয়েছেন, সনিয়া তাঁদের মধ্যে অন্যতম। চণ্ডীগড়ের বাসিন্দা সনিয়ার বাবাও ছিলেন আইপিএস। ছোট থেকেই পড়াশোনায় দুর্ধর্ষ , দ্বাদশে উত্তর ভারতে প্রথম হয়েছিলেন। পরে পাঞ্জাব বিশ্ববিদ্যালয়ে গোল্ড মেডেলিস্ট। ২ বার অসফল হওয়ার পরে ২০০২ সালে আইপিএস ক্র্যাক করেন সোনিয়া।

সহকর্মীদের কাছে অত্যন্ত ডাকসাইটে বলেই পরিচিত। শুধু বুদ্ধিতেই নয়, গায়ের জোরেও যে কাউকে মাত করে দিতে পারেন ক্যারাটেতে ব্ল্যাক বেল্ট সোনিয়া। জানা গিয়েছে, অভিযুক্তদের চোখা চোখা প্রশ্নে পর্যুদস্ত করে দেওয়ায় সনিয়ার বিশেষ ক্ষমতা রয়েছে। প্রশ্নের ঠিকঠাক উত্তর না পেলে তো….কথাই নেই। শোনা যায় , একসময় নাকি এক বিজেপি বিধায়কের গালেও ঠাসিয়ে চড় বসিয়েছিলেন তিনি। কর্নাটকের লোকায়ুক্ত দুর্নীতি ফাঁসে তাঁর ভূমিকা সকলের নজর কেড়েছিল। বেঙ্গালুরুর PU পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস মামলার তদন্ত করেছিলেন তিনি। বারবারই নানা কাজের জন্য সংবাদ শিরোনামে এসেছেন এই সোনিয়া নারাং।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *