Bangla24x7 Desk : কলকাতা শহরের উত্তর থেকে দক্ষিণে জায়গায় জায়গায় দেখা যাচ্ছে একটি পোস্টার। তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবির ওপর লেখা, ‘গেম চেঞ্জার… দাদা’। শিক্ষক-অধ্যাপকদের নাম দেখা যাচ্ছে সেখানে। তৃণমূলপন্থী অধ্যাপক ও শিক্ষক সংগঠনের নেতা মণিশঙ্কর মণ্ডলের নাম দেখা যাচ্ছে সেই পোস্টারে। এই পোস্টারেও মান্যতা পাচ্ছে অভিষেকের নেতৃত্ব।লোকসভা নির্বাচনে যে সাফল্য এসেছে, তাতে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা মনে করছেন ২০২৪-এর নির্বাচনেও মমতাকে দেখেই ভোট হয়েছে। তবে ‘সেনাপতি’ হিসেবে অভিষেককে তুলে ধরতে দ্বিধাবোধ করেননি মমতা। বিভিন্ন জায়গায় গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের মধ্যেও যেভাবে মমতার মুখ, মমতার বার্তাকে প্রতিষ্ঠা করেছেন অভিষেক, তাতে দলের মধ্যে তাঁর গ্রহণযোগ্যতা বেড়েছে আরও। 

রাজ্যে ব্যাপক সাফল্য পাওয়ার কথা বলেছিল বিজেপি তথা বিরোধীরা। টার্গেট ছিল ৩০-৩৫। কিন্তু তার ধারে-কাছেও যায়নি তারা। ২৯টি আসন নিজেদের দখলে এনেছে ঘাসফুল শিবির। আর এই ভোটযুদ্ধের সেনাপতি যে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, সেই ‘সার্টিফিকেট’ ইতিমধ্যেই দিয়েছেন দলের সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ২০২৬ এর বিধানসভা নির্বাচনেও যে অভিষেকের বড় ভূমিকা থাকবে, সেই ইঙ্গিত স্পষ্ট। শুধু রাজ্যে নয়, ইন্ডিয়া জোটের শরিকদের বৈঠকেও প্রতিনিধি হিসেবে অভিষেককেই পাঠিয়েছেন মমতা। ২০১৬-র বিধানসভা নির্বাচনের পর কলকাতায় অভিষেকের ছবি দিয়ে পোস্টার পড়েছিল, যাতে লেখা ছিল ‘ম্যান অব দ্য ম্যাচ’। এরপর ২০২১ এর বিধানসভা নির্বাচনেও নেতৃত্ব দিয়েছেন অভিষেক।

২০২৩ সালে সাগরদিঘিতে উপনির্বাচনে বাম-কংগ্রেস জোট প্রার্থীর জয়ের পর ‘সাগরদিঘি মডেল’ নিয়ে যখন রাজ্যে বিরোধীরা মাতামাতি করছিলেন, তার মধ্যে ২০২৩-এর পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে নবজোয়ার কর্মসূচি নিয়ে ময়দানে নামেন অভিষেক। সেখানেও সাফল্য পান। এমনকী সেই সাগরদিঘির বিধায়ক বায়রন বিশ্বাস তাঁর হাত ধরেই যোগ দেন তৃণমূলে। বিজেপি যখন একশো দিনের কাজ কিংবা আবাসের মতো কেন্দ্রীয় প্রকল্পে দুর্নীতির অভিযোগে সরব হয়েছে, তখন মোদি সরকারের বিরুদ্ধে বঞ্চনার অভিযোগ তুলে অভিষেক বন্দ্য়োপাধ্য়ায় কখনও দিল্লি পৌঁছে গেছেন, কখনও রাজভবনের সামনে ধর্নায় বসেছেন।  লোকসভা ভোটের প্রচারে এরাজ্য়ে এসে, বারবার অভিষেক বন্দ্য়োপাধ্য়ায়কে নিশানা করেছেন নরেন্দ্র মোদি, অমিত শাহরা। দক্ষিণ কলকাতার হাজরা মোড়, ভবানীপুর, কালীঘাট রোড থেকে উত্তর কলকাতার কলেজ স্ট্রিট, শ্যামবাজার পাঁচমাথার মোড়ে বৃহস্পতিবার চোখে পড়েছে এমনই একাধিক পোস্টার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *