img-2

Bangla24x7 Desk : উদ্দেশ্য সচেতনতার বার্তা দেওয়া। গাছ কাটা থেকে মানুষকে বিরত করা। তাই ৭৮৬ কিলোমিটার পথ পায়ে হেঁটে পাহাড় থেকে সমুদ্রে আসছেন মালদহের তরুণী। ব্যাপারটা কী ?

img-3

জানা গিয়েছে, ওই তরুণীর নাম মানসী বিশ্বাস। মালদহ জেলার বাসিন্দা তিনি। পেশা হিসেবে কনস্ট্রাকশানের কাজের সঙ্গে যুক্ত তিনি। একের পর এক ভয়াবহ ধস তাঁকে নাড়া দিয়েছিল। তাই গাছ কাটার বিরুদ্ধে সকলকে সচেতন করার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। এরপরই ঠিক করেন পায়ে হেঁটে টাইগার হিল থেকে বকখালি অর্থাৎ পাহাড় থেকে সমু্দ্রে আসবেন তিনি। সকলকে বার্তা দেবেন গাছ না কাটার, নতুন গাছ লাগানোর। যেমন ভাবনা তেমন কাজ। ১৪ জানয়ারি টাইগার হিল থেকে যাত্রা শুরু করেন মানসী।

শুক্রবার সকালে মুর্শিদাবাদ পৌঁছলেন মানসী। রাস্তার বহু মানুষ তাঁর সঙ্গে কথা বলেন। জানা গিয়েছে, ওই তরুণী বহুদিন ধরেই পরিবেশ সচেতনতা নিয়ে কাজ করছেন। এদিন মানসী বলেন, ধস ও ভূমিক্ষয়ের ঘটনা ঘটে চলেছে। এর কারণ গাছ কাটা। সেই কারণেই মানুষকে সচেতনতার বার্তা দিতে আমি ৭৮৬ কিলোমিটার পথ পায়ে হেঁটে টাইগার হিল থেকে বকখালি বিচে যাচ্ছি। পথে সবাইকে বলব সচেতন হতে।” ম্যানগ্রোভ রক্ষার কথাও বলেন তিনি। মানসী জানিয়েছেন, ৮ থেকে ১০ ফেব্রুয়ারির মধ্যে বকখালি পৌঁছে যাবেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *