img-2

Bangla24x7 Desk : খেলার মাঠ থেকে মঞ্চ – যে কোন বুদ্ধিদীপ্ত ক্যাপ্টেন তার সেরা খেলাটা শেষবেলার জন্য তুলে রাখেন। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি তার ব্যতিক্রম নন। ২০২৪ লোকসভা নির্বাচনের আগে শেষ পূর্ণাঙ্গ বাজেট পেশ কেন্দ্রের মোদি সরকারের। আর ১৪ মাস পর লোকসভা নির্বাচন। যদিও আরেকটি বাজেট সেশন আসবে। কিন্তু সেটা ভোট অন অ্যাকাউন্ট। তাই এবারের বাজেট কেমন হয় সেদিকে নজর ছিল সকলের।

img-3

বাজেটে পেশ হওয়ার পর কী প্রতিক্রিয়া রাজনীতিবিদদের? স্বাভাবিক ভাবেই বিজেপির নেতানেত্রীরা বাজেটের ভূয়সী প্রশংসা করলেও বিরোধীরা তীব্র সমালোচনা করেছেন। এদিন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবারের কেন্দ্রীয় বাজেটকে ‘গরিব-বিরোধী বাজেট’ বলে আক্রমণ করেছেন। বুধবার বোলপুরে এক জনসভায় মমতা বলতে শোনা গিয়েছে, ”বাজেট না অন্য কিছু! মুখে বলা হচ্ছে দারুণ নাকি বাজেট হয়েছে। কী দারুণ ? একটা কথা বেকারদের জন্য বলা নেই। সব বিক্রি করে দেওয়া হয়েছে।” তিনি দাবি করেন, চলতি আর্থিক বছরের বাজেট ”ফরচুনিস্টিক নয় অপরচুনিস্টিক।” তাঁর কথায়, ”এই বাজেটে আশার আলো নেই। অমাবস্যার অন্ধকার আছে। অ্যান্টি-পুওর বাজেট।” তাঁর দাবি, আধঘণ্টা সময় দিলে গরিব মানুষের বাজেট করে দেখাতেন তিনি।

জম্মু ও কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতির মতে, গত ৮-৯ বছর ধরে যেমন বাজেট হচ্ছে তেমন বাজেটই এবারও পেশ করা হয়েছে। তিনি বলেন, ”কল্যাণ প্রকল্পগুলি ও ভাতার অঙ্কে খরচ করা হচ্ছে না।” এদিকে আম আদমি পার্টির সাংসদ সঞ্জয় সিং জানিয়েছেন, এবারের বাজেটে কৃষক ও সেনা জওয়ানরা ব্রাত্যই থেকে গিয়েছেন। একই মত কংগ্রেস সাংসদ কে সুরেশের। তিনি জানাচ্ছেন, ”আদানিদের স্বার্থই দেখা হয়েছে এবারের বাজেট। এই বাজের কর্পোরেটমুখী বাজেট।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *