img-2

Bangla24x7 Desk : বৃহস্পতিবার অনুব্রত মণ্ডলের গ্রেপ্তারির পর থেকেই দলের অবস্থান কী হবে, সেদিকেই নজর ছিল সকলের। তবে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের মতোই অনুব্রতকে নিয়েও নিজেদের অবস্থান জানিয়ে দিল তৃণমূল। এদিন বিকেলে চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য বলেন,” কোনও অনৈতিক কাজকে প্রশ্রয় দেওয়া হবে না। দুর্নীতি হলে জিরো টলারেন্স নীতি নেওয়া হবে বলে দেওয়া হয়েছে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের পক্ষ থেকে।

তিনি আরও বলেন, ‘দলের সর্বোচ্চ নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায় স্পষ্ট জানিয়েছেন, মানুষকে যদি ঠকিয়ে কোনও কাজ করা হয়ে থাকে, দল সেই কাজকে সমর্থন করে না। কেউ সেই কাজ করে থাকলে তাঁকেও দল সমর্থন করে না।’ চন্দ্রিমার দাবি, মানুষের সমর্থন নিয়েই ক্ষমতায় এসেছে তৃণমূল। তাই মানুষের কথা সবার আগে ভাবার বার্তা দিয়েছেন নেত্রী।img-3

তবে কি অনুব্রতর বিরুদ্ধে ওঠা আভিযোগ বরদাস্ত করছে না তৃণমূল ?  সরাসরি এমন কোনও বার্তা দেওয়া হয়নি দলের তরফে। পার্থর মতো অনুব্রতর বিরুদ্ধেও কি কড়া পদক্ষেপ করবে দল ? এ বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে চন্দ্রিমা বলেন, ‘আমাদের দলের একটা শৃঙ্খলারক্ষা কমিটি আছে। দল যা সিদ্ধান্ত নেবে, তা যথা সময়ে জানতে পারবেন।’ অনুব্রত প্রসঙ্গে কোনও কড়া বার্তা না দেওয়া হলেও দল যে আপাতত সরাসরি তৃণমূল নেতার পাশে দাঁড়াচ্ছে না, চন্দ্রিমার কথায় তেমন ইঙ্গিত।

তবে কেন্দ্রীয় তদন্তকারীদের নিরপেক্ষতা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য। তিনি বলেন, “সবক্ষেত্রে নিরপেক্ষতা বজায় রেখে এক আচরণ করুন। অভিযুক্ত যদি কেন্দ্রে ক্ষমতায় থাকা দলের কেউ না হয়, তাঁর বিরুদ্ধে উঠে পরে লেগে যাওয়া আর শাসকদলের কেউ হলে সেক্ষেত্রে চুপচাপ বসে থাকা। এটা চলতে পারে না।” শুভেন্দু অধিকারীকে কেন্দ্র জিজ্ঞাসাবাদও করা হচ্ছে না , সেই প্রশ্নও তোলেন তিনি। তবে অনুব্রত মণ্ডলকে পদ থেকে অপসারণ করা হবে কি না, সে বিষয়ে এখনও তৃণমূলের তরফে জানানো হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *