Bangla24x7 Desk : দলের তরফে শো-কজ করার তিন দিন কেটে যাওয়ার পর। শো-কজ নোটিসে উল্লেখ ছিল সাত দিনের মধ্যে জবাব দিতে হবে। সেই মতো মঙ্গলবার ২৫ জুন , ঠিক এক সপ্তাহের মাথায় বঙ্গ বিজেপির অফিসে দেখা মিলল ডায়মন্ড হারবারের পরাজিত বিজেপি প্রার্থীর। কালো রঙের একটি গাড়িতে চেপে পৌঁছালেন রাজ্য অফিসে। সাদা জামা, গলায় গেরুয়া উত্তরীয়। হাতে একটা ফাইল। সোজা ঢুকে গেলেন বঙ্গ বিজেপির অফিসে। শোকজের জবাব জমা দিলেন রাজ্য অফিসে। আট পাতার জবাব লিখেছেন তিনি। যদিও শো-কজের জবাবে কী উত্তর দিয়েছেন, সে বিষয়ে কোনও মন্তব্য করেননি তিনি। ডায়মন্ড হারবারের পরাজিত বিজেপি প্রার্থীর বক্তব্য, দল তাঁকে শো-কজ করতেই পারে, কিন্তু কেন সেটি সংবাদমাধ্যমের প্রকাশ্যে এল তা নিয়েই প্রশ্ন অভিজিৎ দাস ববির।

শো-কজের চিঠি তিনি হাতে পাওয়ার আগে কীভাবে সংবাদমাধ্যমের হাতে পৌঁছে গেল, তা নিয়েও প্রশ্ন রয়েছে ডায়মন্ড হারবারের পরাজিত বিজেপি প্রার্থী অভিজিৎ দাস ববির মনে। কীভাবে এটা সংবাদমাধ্যমের হাতে গেল, সেটা নিয়ে তদন্ত করে, এর জন্য যে দায়ী, তার বিরুদ্ধে পদক্ষেপের প্রয়োজন রয়েছে বলেও দাবি অভিজিৎ দাসের।  ১৮ জুন শোকজ করা হয়েছিল ডায়মন্ড হারবারের পরাজিত বিজেপি প্রার্থী অভিজিৎ দাস ববিকে। বিজেপির তরফে তাঁকে শো-কজ করা হলেও , প্রাথমিকভাবে তিনি জানিয়েছিলেন, কোনও শো- কজ নোটিস তিনি পাননি। অনেকটা সময় পরে সেই শো-কজ নোটিস হাতে পেয়েছেন তিনি। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *